1. admin@coxbazarnews24.com : admin :
  2. kaimulislamsuton@gmail.com : Kaimulislam :
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৭:০৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পর্যটন স্পট বন্ধ থাকায় পর্যটন ব্যবসায়ীরা বিপাকে। রামুর গর্জনিয়াতে ইয়াবা সম্রাট ” লালুর ” ফিল্ম স্টাইলে চুরি। পরিবেশকর্মী এনামুল কবিরের বিরুদ্ধে অপপ্রচার, বাপা’র নিন্দা প্রকাশ নারিকেল চুরির বিষয় নিয়ে মহেশখালী মাতারবাড়ীর নয়া পাড়ায় দু-পক্ষের মধ্যে ঝগড়া। মাতারবাড়ীতে নৌকা প্রার্থীর ১১ দফা ইশতেহার ঘোষণা, পাল্টে যাচ্ছে ভোটের হিসাব ডিবি পুলিশের হাতে ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা নারী আটক। কক্সবাজারে কিশোর গ্যাং এর তালিকা তৈরী করা হচ্ছে – উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ । ওসি প্রদীপকে চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার কারাগারে স্থানান্তর । কুতুবদিয়াতে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার চকরিয়াতে উপজেলা সমবায়ের দিন ব্যাপী কর্মশালা সম্পন্ন

বেহাল সড়কে বিপর্যন্ত যোগাযোগ ব্যবস্থা কুতুবদিয়া ধূরুং বাজারের মিরাখালী সড়ক

আহমেমদ কবীর সিকদার, কুতুবদিয়া উপজেলা
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৮ জুন, ২০২১
  • ৬২ বার পঠিত

বেহাল দশায় দ্বীপ উপজেলা কুতুবদিয়ার ধুরুং বাজারের পূর্ব পাশে ব্যস্ততম মিরাখালী সড়ক। বর্ষা মৌসুমে টানা বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে যায় সড়কটির বেশ কিছু অংশ। এতে জন দুর্ভোগ চরম আকার ধারন করেছে। চলাচলে মারাত্মক বিঘœ ঘটছে স্থানীয় ব্যবসায়ী এবং পথচারীদের। গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টির পানিতে ডুবে গেছে এ সড়ক। এ সড়কে রয়েছে অসংখ্য ছোট বড় মাঝারি ধরনের খানাখন্দ। বিশেষ করে সড়কের বেশকিছু অংশ ভেঙ্গে যাওয়ার কারনে প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হয় পণ্যবাহী, যাত্রীবাহী গাড়ি এবং ধূরুং বাজারে যাতায়াতকারী দুই ইউনিয়নের প্রায় ২০ হাজার মানুষ। ভারি বৃষ্টি হলে পানি জমে তা পুকুরে পরিণত হয়। সড়কটিতে জন ও যান চলাচলে মারাত্মক দূর্ঘটনার আশঙ্কা করেছেন স্থানীয়রা।

সোমবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এ সড়কের দু-পাশে প্রায় ৬০টি দোকান রয়েছে। সড়কটির দুই পাশে পানি চলাচলের জন্য কোন ড্রেন না থাকায় বর্ষার প্রবল বৃষ্টিতে পুরো সড়ক জলাবদ্ধ হয়ে গেছে। ফলে সড়কটি হাটু পরিমাণ পানিতে তলিয়ে গেছে।

ধূরুং বাজারের ফার্মেসী ব্যবসায়ী তপন কুমার দাশ বলেন, বিগত তিন বছর ধরে এ সড়কটি ভঙ্গুরাবস্থায় রয়েছে। প্রতি বর্ষায় অতি বৃষ্টির কারণে দোকানের সামনে পানি জমে থাকার কারনে রোগী এবং ক্রেতারা দোকানে আসতে চরম কষ্টে পড়েন। সে সুযোগে যানবাহন চালকেরা যাত্রীদেও নিকট থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করেন।এ ভোগান্তি থেকে দ্রƒত মুক্তি পেতে সড়কটি সংস্কারের জন্য জোর দাবী জানান তিনি।

স্থানীয় অটোরিক্সা চালক মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ বলেন, ধূরুং বাজারের এ রাস্তাটির চেয়ে পাড়া মহল্লার রাস্তা গুলো অনকে ভালো।এ রাস্তা দিয়ে আমরা ঠিক ভাবে রিক্সা চালাতে পারি না। রাস্তার ইপর ছোট বড় গর্তে পড়ে গাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়। যার ফলে যাত্রী নিয়ে বাজারে প্রবেশ করতে ইচ্ছে করে না।

ধূরুং আন্ত জোন টেম্পু মালিক সমিতির লাইন্স ম্যান মোং এরশাদ বলেন, এ সড়ক থেকে ধূরুং ঘাট পর্যন্ত প্রতিদিন প্রায় ৪৮টি টেম্পু গাড়ি চলাচল করে। দীর্ঘদিন মেরামত না করার কারনে এ সড়কে বড় বড় গর্ত হয়েছে। বর্ষায় গর্তে পানি জলাবদ্ধ হওয়ার কারণে হিমসিম খেতে হয় যান চালকদের। বৃষ্টির পানি জমে থাকার কারণে এ সড়ক দিয়ে ধূরুং বাজার থেকে যাত্রী নিয়ে গাড়ি রওয়ানা দেয়ার মুহুর্তে গর্তে পড়ে প্রায় সময় দুর্ঘটনার সম্মুখিন হতে হয়।

ধূরুং বাজার বণিক কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক কামরুল সিকদার বলেন, রাস্তাটি পুনঃসংস্কারের টেন্ডার হয়েছে বলে শুনেছি। খুব শীঘ্রই কাজ শুরু হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2020 Coxbazarnews24
কারিগরি সহযোগিতায় :মোস্তাকিম জনি